Ad Clicks : Ad Views :

এবার ফেসবুকে জুতার রিয়েকশন চালুর নিয়ম

/
/
/

‘সম্প্রতিকালে ফেসবুকে একটি নতুন ফিচার চালু করেছে সেটি হল কাস্টম রিয়েকশন দিতে পারবে যে কোনো ব্যবহারকারী। পরীক্ষামূলকভাবে এই ফিচারটি চালু করা হয়েছে কয়েকদিন আগে। অনেকেই এই কাস্টম ইমোজির জায়গায় জুতা ইমোজি ব্যবহার করছেন। তাই অনেকেই জুতা সিম্পলের এই ইমুজি টি কাস্টম রিএকশন সিস্টেমে ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছেন।

‘পূর্বে আমরা ফেসবুকে সাতটি মনোভাব প্রকাশ করার অপশন দেখতে পেতাম এখন আমরা আটটি অপশন দেখতে পাবো । আর এখন বর্তমানে এখানে আরো একটি কাস্টম রিয়াকশন সিস্টেম চালু করার সুবিধা দিয়েছে ফেসবুক।আপাতত ফেসবুক এটা পরীক্ষামূলকভাবে কিছু প্রাইভেট গ্রুপে চালু করে দিয়েছে ।
আরো পড়ুনঃ
মহানবী (সা.) এর পোশাক দেখতে হাজারো মানুষের ঢল
মসজিদে নববীতে ‘রিয়াজুল জান্নাহ’ নামে একটা জায়গা আছে

গ্রুপে এডমিন চাইলে এই কাস্টম রিএকশন সিস্টেমটি অদলবদল করে যে কোন ইমোজি ব্যবহার করতে পারবে সেটা হোক জুতা বা অন্য কিছু। যদি এটা দিয়ে ফেসবুক ভালো ফিডব্যাক পায় তাহলে এটা গ্লোবাল রিলিজ করে দিবে । আপনার যদি একটি ফেসবুক প্রাইভেট গ্রুপ থাকে এবং আপনি যদি গ্রুপের এডমিন হয়ে থাকেন তাহলে আপনি চেক করে দেখতে পারেন আপনার গ্রুপের এই নতুন ফিচারটি এভেলেবেল রয়েছে কিনা।

যদি আপনার ফেসবুক গ্রুপে এই সিস্টেমটি এভেলেবেল থাকে তাহলে এই জুতা মারার রিএকশন বা কাস্টম রিয়াকশন টা কি ভাবে মডিফাই করবেন আজকের পোষ্টে জানতে পারবেন।

ফেসবুকে রিয়েকশন এর ইতিহাস

ফেসবুক কোম্পানি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম চালু হওয়া ৫ বছর পরে লাইক অপশনটি ফেসবুকে এড করেছিলেন মার্ক জুকারবার্গ ( ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ) । ফেসবুকের সূচনা হয় 2004 সালে । তখন ফেসবুকে কারো পোস্টে কোন ধরনের রিএকশন দেয়া যেত না । রিএকশন এর অপশন ছিল না । এবং 2009 সালে দীর্ঘ ৫ বছর পর ফেসবুক লাইক নামক এই রিএকশন অপশনটি চালু করে। তখন সকল ধরনের পোস্টের শুধুমাত্র লাইক রিএকশন টি দেয়া যেত ।

এবং পরবর্তীতে ফেসবুক কোম্পানি আরো রিএকশন এর সম্বন্ধে ভাবতে থাকে তারপর 2016 সালে Love , Ha Ha, sad, Wow, Angry এই সকল রিয়েক্ট গুলো ফেসবুক চালু করে দেয় । পরবর্তীতে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের চাহিদা অনুযায়ী 2020 সালে Care নামক এই রিয়েক্ট টি ও ফেসবুক কোম্পানি চালু করে দেয় । বর্তমানে এই সাতটি রিএকশন এর পাশাপাশি আরো একটি রিএকশন যোগ হতে চলছে সেটি হল কাস্টমাইজ রিএকশন । যেটাকে কিছু গ্রুপের লিজেন্ডারি এডমিনগণ জুতা সিলেক্ট করে এটাকে জুতার রিএকশন বানিয়ে ফেলেছে ।

কিভাবে কাস্টম রিএকশন বা জুতা রিয়েক্ট চালু দিবেন

ফেসবুক শুধুমাত্র কয়েকটি প্রাইভেট গ্রুপে এই রিএকশন টি চালু করেছে পরীক্ষামূলক ভাবে । আমরা চাইলেও এটি আমাদের প্রোফাইল বা পেইজে আনতে পারব না । এই রিএকশন যদি আমরা আমাদের গ্রুপে আনতে চাই তাহলে আমাদের গ্রুপটি প্রাইভেট গ্রুপ হতে হবে । এবং গ্রুপটির বয়ষ 3-4 বছরের মতো হতে হবে । তাহলে জুতার রিয়েক্ট টি আমরা আমাদের গ্রুপে চালু করতে পারব।

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This div height required for enabling the sticky sidebar